ঢাকা, ২৬ অক্টোবর মঙ্গলবার, ২০২১ || ১০ কার্তিক ১৪২৮
 নিউজ আপডেট:

আজ থেকে ভারতে বিশ্বের বৃহত্তম গণ টিকাদান শুরু

ক্যাটাগরি : আন্তর্জাতিক প্রকাশিত: ৬৭৮১ঘণ্টা পূর্বে


আজ থেকে ভারতে বিশ্বের বৃহত্তম গণ টিকাদান শুরু

সবারকথা ডেস্ক|| ভারতে আজ শুরু হয়েছে পৃথিবীর বৃহত্তম করোনার গণ টিকাদান কর্মসূচী। স্থানীয় সময় শনিবার সকাল সাড়ে দশটায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে টিকা কর্মসূচি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। দেশটির তিন হাজার ছয়টি কেন্দ্রে চলছে এই কার্যক্রম।

সরকারের পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী, প্রথম ধাপে টিকা দেয়া হবে এক কোটি স্বাস্থ্যকর্মীকে। তাদের মধ্যে অন্তত তিন লাখকে আগামীকাল প্রতিষেধক দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের।

দিল্লিতে প্রথম দিনে ৮১টি কেন্দ্রের মধ্যে ছ’টিতে ভারত বায়োটেকের কোভ্যাক্সিন প্রতিষেধক দেয়া হবে। ৭৫টিতে ব্যবহার হবে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিশিল্ড। প্রত্যেকে যাতে ২৮ দিনের ব্যবধানে একই প্রতিষেধকের দু’টি ডোজ পান, তা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে রাজ্যগুলিকে।

আসামের ৬৫ কেন্দ্রের মধ্যে ৫৯টিতে কোভিশিল্ড ও ছয়টিতে কোভ্যাক্সিন দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমান্ত বিশ্ব শর্মা। এছাড়াও পশ্চিমবঙ্গে প্রতিষেধক দেয়া হবে ২১০টি কেন্দ্রে। প্রতিদিন বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত চলবে টিকা দেয়া।

ভারত সরকার ইতিমধ্যে দেশব্যাপী তিনবার করোনা টিকার মহড়া চালিয়েছে। সর্বশেষ গত ৮ জানুয়ারিতে ৩৩টি রাজ্যের ৪ হাজার ৮৯৫ জায়গায় এ মহড়া দেয়া হয়।

৩ জানুয়ারি ভারত সরকারের পক্ষ থেকে জরুরি ব্যবহারের জন্য দুটি টিকার অনুমোদন দেয়া হয়। এ দুটি টিকা হচ্ছে ভারত বায়োটেকের তৈরি ‘কোভ্যাক্সিন’ এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও অক্সফোর্ডের তৈরি সেরাম ইনস্টিটিউটের উৎপাদিত টিকা ‘কোভিশিল্ড’। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট কোভিশিল্ড টিকা উৎপাদন করছে।

ভারতের এ দুটি টিকা হচ্ছে দুই ডোজের। সর্বোচ্চ সুরক্ষা পেতে দুই ডোজ টিকা দিতে হবে। এ দুটি টিকা স্বাভাবিক ফ্রিজের তাপমাত্রায় (দুই থেকে আট ডিগ্রি সেলসিয়াস) সংরক্ষণ করা যায়।

শেয়ার করুনঃ
আপনার মতামত লিখুন:
Search
গাইবান্ধায় কিশোরী লিমা হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেপ্তার দাবিতে মানববন্ধন  গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের ধর্মপুর পিএন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর মেধাবি ছাত্রী লিমা আক্তার হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে  হত্যাকান্ডের পর থেকেই দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল,সড়ক অবরোধ সহ মানববন্ধন  করে আসছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।    বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে  গাইবান্ধা শহরের ডিবি রোডে ঘন্টাব্যাপী এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য দেন, নারী মুক্তি আন্দোলনের সদস্য সচিব নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, শোভাগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক আবদুল্লাহ আল মামুন,নিহত লিমার বাবা আব্দুল লতিফ, বড় ভাই লিমন মিয়া, ছোট ভাই লিটু মিয়া, কামরুল ইসলাম, আহসান হাবীব,রিমা রিক্তার,পলি বর্মন,আব্দুল আহাদ, শাহাদাৎ হোসেন সিপার, মোস্তাফিজুর রহমান লাভলু, হিমুন দেব বিশ্ব সহ অন্যরা।   গত ২৩ সেপ্টেম্বর লিমা স্থানীয় একটি কোচিং সেন্টারে যাওয়ার পথে স্থানীয় বখাটে শাকিল অপহরন করে নিয়ে যায়। পরে ১০ অক্টোবর চট্রগ্রাম ইপিজেড এলাকার শাকিলের মামা সোলায়মান আলীর ভাড়া বাসা থেকে লিমার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় শাকিল ও তার মামা সোলায়মান আলীকে গ্রেপ্তার করা হলেও আসামী হাফিজুর রহমান, হৃদয় মিয়া, শাকিলের বাবা শহিদুল ইসলাম সহ অন্যান্যদের এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। দ্রুত আসামীদের গ্রেপ্তার করে বিচার দাবি জানান বক্তারা।

গাইবান্ধায় কিশোরী লিমা হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেপ্তার দাবিতে মানববন্ধন গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের ধর্মপুর পিএন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর মেধাবি ছাত্রী লিমা আক্তার হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে হত্যাকান্ডের পর থেকেই দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল,সড়ক অবরোধ সহ মানববন্ধন করে আসছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে গাইবান্ধা শহরের ডিবি রোডে ঘন্টাব্যাপী এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য দেন, নারী মুক্তি আন্দোলনের সদস্য সচিব নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, শোভাগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক আবদুল্লাহ আল মামুন,নিহত লিমার বাবা আব্দুল লতিফ, বড় ভাই লিমন মিয়া, ছোট ভাই লিটু মিয়া, কামরুল ইসলাম, আহসান হাবীব,রিমা রিক্তার,পলি বর্মন,আব্দুল আহাদ, শাহাদাৎ হোসেন সিপার, মোস্তাফিজুর রহমান লাভলু, হিমুন দেব বিশ্ব সহ অন্যরা। গত ২৩ সেপ্টেম্বর লিমা স্থানীয় একটি কোচিং সেন্টারে যাওয়ার পথে স্থানীয় বখাটে শাকিল অপহরন করে নিয়ে যায়। পরে ১০ অক্টোবর চট্রগ্রাম ইপিজেড এলাকার শাকিলের মামা সোলায়মান আলীর ভাড়া বাসা থেকে লিমার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় শাকিল ও তার মামা সোলায়মান আলীকে গ্রেপ্তার করা হলেও আসামী হাফিজুর রহমান, হৃদয় মিয়া, শাকিলের বাবা শহিদুল ইসলাম সহ অন্যান্যদের এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। দ্রুত আসামীদের গ্রেপ্তার করে বিচার দাবি জানান বক্তারা।


সারাদেশের সংবাদ