ঢাকা, ১৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার, ২০২১ || ১ বৈশাখ ১৪২৮
 নিউজ আপডেট:

ইতিহাসে ৬ সেপ্টেম্বর স্মরণীয় হয়ে আছে বেশ কয়েকজন বরেণ্য ব্যক্তির জন্ম মৃত্যুর দিন হিসেবে।

ক্যাটাগরি : ফিচার প্রকাশিত: ৫৩০৩ঘণ্টা পূর্বে


ইতিহাসে ৬ সেপ্টেম্বর স্মরণীয় হয়ে আছে বেশ কয়েকজন বরেণ্য ব্যক্তির জন্ম মৃত্যুর দিন হিসেবে।

 

১৮৮৯ সালের এই দিনে জন্মগ্রহণ করেন শরৎচন্দ্র বসু (মৃত্য: ২০শে ফেব্রুয়ারি, ১৯৫০)। তিনি ছিলেন একজন বাঙালি জাতীয়তাবাদী, পেশায় ব্যারিস্টার এবং ভারতের স্বাধীনতা কর্মী। তিনি জানকীনাথ বসুর ছেলে এবং নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুর মেজ ভাই। তিনি ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন করেন ও পরবর্তীতে একটি অবিভক্ত স্বাধীন বাংলা প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠার লক্ষে কাজ করে গেছেন। তিনি ভারতীয় সশস্ত্র বিপ্লবী আন্দোলনের একজন নৈতিক সমর্থক ছিলেন। স্বাধীনতা সংগ্রামীদের হয়ে আদালতে বিনা পারিশ্রমিকে সওয়াল করতেন।

উস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ (৮ অক্টোবর ১৮৬২) মৃত্যুবরণ করেন ১৯৭২ সালের আজকের এদিনে। তিনি ছিলেন একজন বাঙালি সঙ্গীতজ্ঞ। বাবা আলাউদ্দিন খান নামেও তিনি পরিচিত ছিলেন। সেতার ও সানাই এবং রাগ সঙ্গীতে বিখ্যাত ঘরানার গুরু হিসাবে সারা বিশ্বে তিনি প্রখ্যাত। মূলত সরোদই তার শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের বাহন হলেও সাক্সোফোন, বেহালা, ট্রাম্পেট সহ আরো অনেক বাদ্যযন্ত্রে তার যোগ্যতা ছিল অপরিসীম। আলাউদ্দিন খাঁর জন্ম তৎকালীন ত্রিপুরা প্রদেশের শিবপুর গ্রামে যা বর্তমানে বাংলাদেশের ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলার অন্তর্গত। তার সন্তান ওস্তাদ আলী আকবর খান ও অন্নপূর্ণা দেবী নিজস্ব ক্ষেত্রে উজ্জ্বল নক্ষত্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। আচার্যের বিখ্যাত শিষ্যরা হলেন পণ্ডিত রবি শঙ্কর, পণ্ডিত নিখিল ব্যানার্জী, বসন্ত রায়, পান্নালাল ঘোষ সহ আরো অনেকে।  ইংল্যান্ডের রানী কর্তৃক সুরসম্রাট খেতাবপ্রাপ্ত এই সঙ্গীতজ্ঞ ভারতের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় খেতাব পদ্মভূষণ ছাড়াও পদ্মবিভূষণ এবং বিশ্ব ভারতীয় দেশীকোত্তমসহ দিল্লি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লাভ করেন সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি। 

১৯৭২ সালের আজকের দিনে জন্মগ্রহণ করেন ইদ্রিস এলবা। তিনি হলেন একজন ব্রিটিশ অভিনেতা, প্রযোজক, পরিচালক, সঙ্গীতজ্ঞ এবং ডিজে, যিনি এইচবিও ধারাবাহিক দ্য অয়্যারে মাদক পাচারকারী স্ট্রিঙ্গার বেল, বিবিসি ধারাবাহিক লুথার-এ জন লুথার এবং জীবনীনির্ভর চলচ্চিত্র ম্যান্ডেলা: লং ওয়াক টু ফ্রিডম (২০১৩)-এ নেলসন ম্যান্ডেলা চরিত্রে অভিনয়ের জন্য পরিচিত। ভিক্টর হেডলির ইয়ার্ডি ১৯৯২ সালের উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে নির্মিত চলচ্চিত্র ইয়ার্ডির মাধ্যমে পরিচালক হিসেবে তার অভিষেক ঘটে।তিনি সেরা মিনি ধারাবাহিক বা টেলিচলচ্চিত্র অভিনেতা বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের জন্য চারবার মনোনয়ন লাভ করেন এবং একটি গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার অর্জন করেছেন এছাড়াও তিনি প্রাইমটাইম এমি পুরস্কারের জন্য পাঁচবার মনোনীত হয়েছেন। 

ডাক্তার মোহাম্মদ ইব্রাহিম (জন্মঃ ১ জানুয়ারি ১৯১১) ১৯৮৯ সালের আজকের এই দিনে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি হলেন বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা এবং একজন জাতীয় অধ্যাপক। তার মূল নাম 'শেখ আবু মোহাম্মদ ইব্রাহিম'। তিনি ১৯৬৫ সালে ডায়াবেটিক হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করেন যা বর্তমানে বারডেম হাসপাতাল নামে পরিচিত। বাংলাদেশে ডায়াবেটিকস রোগ সম্পর্কে সচেতনতা ও এর প্রতিকারে তার অবদান অনস্বীকার্য। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক “আমি বীরঙ্গনা বলছি”-খ্যাত নীলিমা ইব্রাহিমের সাথে তিনি দাম্পত্যজীবন শুরু করেন ১৯৪৫ সালে।

বাংলাদেশী ক্রিকেটার মুস্তাফিজুর রহমান ১৯৯৫ সালের আজকের দিনে সাতক্ষীরায় জন্মগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য হিসেবে দলে তিনি বাহাতি মিডিয়াম বোলিং করে থাকেন। বিশ্বের একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে তিনি তার প্রথম দুই ম্যাচে এগারোটি উইকেট লাভ করেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে আবাহনী লিমিটেড, খুলনা বিভাগের প্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি। এছাড়া ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত আইপিএলে তিনি "সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ" দলে খেলছেন । এবং সম্প্রতি ইংল্যান্ডের ন্যাটওয়েস্ট টি২০ -তে সাসেক্স ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে খেলেছেন তিনি । তিনিই একমাত্র খেলোয়াড় যিনি উভয় একদিনের আন্তর্জাতিক এবং টেস্টের অভিষেকে 'ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ' পুরস্কার লাভ করেন। উল্লেখযোগ্য রেকর্ডের মধ্যে ওডিআই অভিষেকে বিশ্বের ১০ম বোলার হিসেবে পাঁচ-উইকেট পান। এছাড়াও, বিশ্বের ৪র্থ বোলার হিসেবে প্রথম দুই ওডিআইয়ে ম্যান অব দ্য ম্যাচ পুরস্কার পান।

শেয়ার করুনঃ
আপনার মতামত লিখুন: