ঢাকা, ১৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার, ২০২১ || ১ বৈশাখ ১৪২৮
 নিউজ আপডেট:

চরফ্যাশনে ইন্সুরেন্সের নামে প্রতারণা! 

ক্যাটাগরি : বাংলাদেশ প্রকাশিত: ৪৯৭৯ঘণ্টা পূর্বে


চরফ্যাশনে ইন্সুরেন্সের নামে প্রতারণা! 

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধিঃ বিমা বা লাইফ ইন্সুরেন্স ও স্থানিয় সমিতির নামে প্রতারণা করে লাখ,লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। 

উপজেলার হাজারিগঞ্জ ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের সহজ সরল নারী পুরুষকে পদ্মা যমুনা লাইফ ইন্সুরেন্স ও বাংলাদেশ আঞ্চলিক সঞ্চয় একতা সংগঠনের (সমিতি) নামে হাজারিগঞ্জ ইউনিয়ন সংলগ্ন মাদ্রাজ ইউনিয়নের মেয়াজানপুর ৯নং ওয়ার্ডের পাটওয়ারি বাড়ির শিরাজ পাটওয়ারির ছেলে ফারুক কর্তৃক লাখ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী একাধিক অসহায় পরিবার। 

জানা যায়, প্রতারক ফারুক ৩ বছর পূর্বে ইন্সুরেন্স কোম্পানীতে চাকুরির সুবাধে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পরিচিতি লাভ করে। 

এর ধারাবাহিকতায় মাদ্রাজ,হাজারিগঞ্জ,শশিভূষণ, দক্ষিণ আইচাসহ গ্রামের বিভিন্ন সরল লোকজনকে লাভজনক ডিপিএসের লোভনীয় অফার দেখিয়ে নাম সর্বস্ব ভূয়া ইন্সুরেন্স ও সংগঠন বা সমিতি'র নামে দারিদ্র শ্রেণীর অর্জিত লাখ লাখ টাকা আত্মসাত করে। 

ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে আরও বলেন, প্রতারক চক্রের মূল হোতা ফারুক লাইফ ইন্সুরেন্সের নামে সঞ্চয় পাশ বই ও সঞ্চয় ঋণ পাশ বইয়ে হিসাব উল্লেখ করে সাইন দিয়ে গ্রাহকদের কাছ থেকে ৫/১০ বছরের মেয়াদে ৫শ থেকে ১হাজার টাকা মাসিক কিস্তি আদায় করে। 

প্রতারক ফারুকের প্রতারণার শিকার সবুজ,আব্দুল্লাহ, মিজান,শরীফ,রহিমা,ফয়জুল্লাহ,হারুন,শেফালীসহ শতাধিক গ্রাহক চরফ্যাশন চাউল পট্টি রোডে তাদের কোনো অফিস ও ঠিকানা না পেয়ে হতাশাগ্রস্ত গ্রাহকরা ফারুকের কাছে টাকা চাইতে গেলে গ্রাহকদের বিভিন্ন হুমকি ধামকি ও ভয়ভিতী দেখিয়ে টাকার বিষয় অস্বীকার করে। 

নিরুপায় হয়ে গ্রাহকরা সংবাদকর্মীদের কাছে অভিযোগ করেন এবং প্রশাসনের কাছে প্রতারক ফারুকের বিচার দাবি করেন। 

এবিষয়ে অভিযুক্ত ফারুক মুঠোফোনে জানান, তারা ডিপিএস করেছে তাদের ঋণ দেয়া হবে এবং ওই ডিপিএসের মেয়াদত্তীর্ণ না হলে তাদের টাকা দেয়া যাবেনা।

শেয়ার করুনঃ
আপনার মতামত লিখুন: