ঢাকা, ২ আগস্ট সোমবার, ২০২১ || ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮
 নিউজ আপডেট:

রাজনীতিতে সাংগঠনিক শক্তি সঞ্চয় করতে হবে: মাহবুব রহমান রুহেল

ক্যাটাগরি : বাংলাদেশ প্রকাশিত: ৫৯৩৩ঘণ্টা পূর্বে


রাজনীতিতে সাংগঠনিক শক্তি সঞ্চয় করতে হবে: মাহবুব রহমান রুহেল

মোহাম্মদ হাসানঃ আইটি বিশেষজ্ঞ, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুব রহমান রুহেল বলেছেন, সকলে বলছেন রাজনীতিতে ভাইরাস ঢুকে পড়েছে। সাহেদদের মত অনেক দূর্ণীতিবাজ ঢুকে পড়েছে। আর এই রাজনীতির ভাইরাস দূর করতে হবে। তাই এই ভাইরাস দূরীকরণে আওয়ামী যুবলীগকে এন্টিবডি হয়ে কাজ করতে হবে। তার জন্য নিজেদেরকে তৈরী করতে হবে।


আজ ২৮ নভেম্বর শনিবার চট্টগ্রামের মীরসরাই উপজেলার মিঠাছড়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আওয়ামী যুবলীগের সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাহবুব রহমান রুহেল এসব কথা বলেন। 


তিনি বলেন, আমি রাজনীতিতে আসতাম না। আমি রাজনীতিতে এসেছি জিদের বসে। কারন এক এগারোর কঠিন সময়ে আমার পিতা বর্ষিয়ান আওয়ামী লীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনকে মিথ্যা বানোয়াট অভিযোগ সাজিয়ে জেলে ঢুকালে এক বছরেরও বেশি সময় জেলখানা,আদালত,আইনজীবীর দ্বারে দ্বারে ঘুরতে গিয়ে দেখেছি দেখেছি তখন কিছু মানুষের বেইমানী সহ নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টায় তখন থেকেই আমার মধ্যে রাজনীতিতে আসার জিদ তৈরী হয়। 


মাহবুব রহমান বলেন, আমি চাই একটি আধুনিক মাদক দূর্নীতি মুক্ত বাসযোগ্য মীরসরাই গড়া। আর এ প্রত্যাশা পূরণে প্রথমত মাদক ছাড়তে হবে দূর্নীতি ছাড়তে হবে। সামনের দিনগুলোর জন্য রাজনীতিতে সাংগঠনিক শক্তি সঞ্চয় করতে হবে।


রুহেল বলেন, বৈশ্বিক স্বাস্থ্য ঝুঁকি করোনা মহামারী আর কয়েকমাস আমাদেরকে সচেতন থাকতে হবে, মাক্স পরতে হবে,হাতধুতে হবে।বয়োজ্যেষ্ঠ মুরব্বীদের প্রতি বেশি বেশি নজর দিতে হবে। সর্বপরি আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ থেকে আওয়ামী যুবলীগকে সাজিয়ে আগামীর সমৃদ্ধ বাংলা গড়ার কাজে নিয়োজিত হতে হবে।


সম্মেলনের উদ্বোধক আওয়ামী যুবলীগ চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপ আলহাজ্ব এস এম আল মামুন বলেন, আওয়ামী যুবলীগ একটি সুসজ্জিত সংগঠন। আমরা নিকট অতীতে কঠিন কিছু অপরাজনীতি মোকাবেলা সহ সাংগঠনিক ব্যাস্তায় জেলা সম্মেলন করতে বিলম্ব অতপর আমিও এখন আওয়ামী লীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মী তাই অচিরেই চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবলীগের সম্মেলন হবে ইনশাআল্লাহ। 


প্রধানবক্তা চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম রাশেদ আলম বলেন,  আওয়ামী যুবলীগে কোন মাদক কারবারির ঠাঁই হবে না। কোন ইয়াবা সেবনকারীর জায়গা হবেনা কোন ইয়াবা ব্যাবসায়ীর জায়গা হবে না। 


দ্বিতীয় অধিবেশনে সম্ভাব্য ডজন খানেক পদ প্রত্যাশীর বায়োডাটা গ্রহণ করে নিয়ে জেলা যুবলীগ বার্তা দিয়েছেন বায়োডাটা কেন্দ্রে পাঠিয়ে সেখান থেকে সিদ্ধান্ত আসবে।

শেয়ার করুনঃ
আপনার মতামত লিখুন:
Search

সারাদেশের সংবাদ