ঢাকা, ২৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, ২০২১ || ৯ আশ্বিন ১৪২৮
 নিউজ আপডেট:

চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের উদ্যোগে প্রায় ২৮লাখ টাকার শিক্ষাবৃত্তি প্রদান

ক্যাটাগরি : বাংলাদেশ প্রকাশিত: ৮০৫৭ঘণ্টা পূর্বে


চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের উদ্যোগে প্রায় ২৮লাখ টাকার শিক্ষাবৃত্তি প্রদান

মোহাম্মদ হাসানঃ শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলোছেন, নতুন প্রজন্মকে জীবনভিত্তিক শিক্ষা অর্জন করতে হবে। উচ্চশিক্ষা অর্জন করে শুধু চেয়ার-টেবিলে ফাইল সই করার মানসিকতা পরিহার করে প্রকৃত শিক্ষা অর্জন হবে। 


আজ ২৩ অক্টোবর শুক্রবার সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।


শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চট্টগ্রামে শিক্ষা বিস্তারে কাজ করে যাচ্ছে।জনমুখী রাজনীতিবিদ হওয়ায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ সালাম চট্টগ্রামের তৃণমূল পর্যায়ে উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষা বিস্তারে কাজ করছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রধান বিবেচ্য বিষয় ছিল শিক্ষা। তিনি ব্যবহারিক শিক্ষার পাশাপাশি নৈতিক ও মানবিক শিক্ষার কথাও বলেছেন। বঙ্গবন্ধু তৎকালীন ৩৫ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করেছিলেন। বর্তমানে তাঁর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দায়িত্ব নেয়ার পর দক্ষতাভিত্তিক প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষার ওপর জোর দিয়েছেন। এ ছাড়া শিক্ষাকে যুগোপযোগীভাবে এগিয়ে নিতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।  


তিনি আরও বলেন, নতুন প্রজন্মকে সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি কারিগরী শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। যুগোপযোগীভাবে শিক্ষা গ্রহণ করে দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে হবে। 


বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর প্রদীপ চক্রবর্তী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আজ তোমরা জেলা পরিষদের শিক্ষা বৃত্তি পেয়ে দেশের কাছে ঋণী হয়ে গেলে। এখন তোমাদের সুশিক্ষিত হয়ে দেশের কল্যাণে কাজ করতে হবে।


অনুষ্ঠানের সভাপতি চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ সালাম বলেন, শিক্ষা একান্ত নিজস্ব। অন্য জিনিসের বিকল্প আছে, কিন্তু শিক্ষার বিকল্প নেই। শিক্ষার অংশীদার নাই, উত্তরাধিকার নেই। শিক্ষা চুরি হয় না, ছিনতাই হয় না, ডাকাতি হয় না। পৃথিবীতে শিক্ষা একান্তভাবেই নিজস্ব। প্রধানমন্ত্র শেখ হাসিনা শিক্ষার উৎসাহীকরণে বছরের প্রথম দিনেই বিনামূল্যের বই শিক্ষার্থীদের হাত তুলে দিচ্ছেন। পাশাপাশি মেধাবী গরীব, অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি দিচ্ছেন। তারই অংশ হিসেবে জেলা পরিষদের এই শিক্ষাবৃত্তি।


বিশেষ অতিথি চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, জেলা পরিষদের সদস্য শেখ মোঃ আতাউর রহমান বলেন, একটি দেশের টেকসই উন্নয়ন তখনই সম্ভব, যখন দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষা ও মানবসম্পদের উন্নয়ন ঘটে। আর এ বিষয়টি অনুধাবন করে দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশনায় দেশে মানসম্মত ও যুগোপযোগী শিক্ষা নিশ্চিত করতে গত এক যুগ ধরে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন বর্তমান সরকার। শিক্ষার প্রসার ও জনগণকে শতভাগ শিক্ষার আওতায় নিয়ে আসার জন্য নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন বর্তমান সরকার।

শিক্ষায় নারী-পুরুষের সমতা অর্জনে বাংলাদেশ ছুঁয়েছে নতুন মাইলফলক। বাংলাদেশে শিক্ষায় ছেলেদের চেয়ে মেয়েদের অগ্রগতি চোখে পড়ার মতো।


চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (উপসচিব) শাব্বির ইকবাল বলেন, প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও মাদ্রাসা পর্যায়ে চট্টগ্রামের ৩২৪ শিক্ষার্থীকে প্রায় ২৮ লাখ টাকার শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হয়েছে। এ ধারা অব্যাহত থাকবে।


অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য ও কর্মকর্তা এবং বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের অভিভাবকগণ উপস্থিত ছিলেন।


২০১৯-২০ অর্থবছরে বিভিন্ন কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও মাদরাসায় অধ্যয়নরত মেধাবী ও অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের মাঝে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের উদ্যোগে বিভিন্ন ক্যাটেগরির ৩২৪ জন ছাত্রছাত্রীর মাঝে মোট ২৭ লাখ ৮০ হাজার টাকা শিক্ষাবৃত্তি হিসেবে বিতরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুনঃ
আপনার মতামত লিখুন:
আরও সংবাদ পড়ুন