ঢাকা, ২৬ অক্টোবর মঙ্গলবার, ২০২১ || ১০ কার্তিক ১৪২৮
 নিউজ আপডেট:

ফুলপুরে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার।

ক্যাটাগরি : বাংলাদেশ প্রকাশিত: ৭৯৪ঘণ্টা পূর্বে


ফুলপুরে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার।

স্টাফ রিপোর্টার :

ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার ৮ নং রূপসী ইউনিয়নের বিহারাঙ্গা গ্রামের রিতা আক্তার (২৮) নামে এক স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে পুলিশ দোলোয়ার হোসেন (৩৫) নামে স্বামীকে গ্রেফতার করে আজ ২২ সেপ্টেম্বর বুধবার আদালতে পাঠিয়েছেন। হত্যার ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সকালে উপজেলার রূপসী ইউনিয়নের বিহারাঙ্গা গ্রামে। 

জানা যায়, উপজেলার বিহারাঙ্গা গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের সাথে ১০ বছর আগে নওগাঁ জেলার বদলগাছি উপজেলার ভোলার পালসা গ্রামের ইব্রাহিম মন্ডলের মেয়ে রিতা আক্তারের বিয়ে হয়। তাদের মাঝে যৌতুক নিয়ে বিরোধ চলছিল। মঙ্গলবার সকালে রিতা আক্তারের মৃত্যু হয়। পরিবারের লোকজন এসে গায়ে আঘাতের চিহ্ন দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন।

পুলিশ সন্ধ্যায় নিহতের লাশ উদ্ধার ও স্বামীকে গ্রেফতার করে থানায় আনেন। পরদিন ময়না তদন্তের জন্য লাশ ময়মনসিংহ মর্গে ও স্বামীকে আদালতে প্রেরণ করেছেন। এ ঘটনায় নিহতের মা রাশিদা বেগম বাদি হয়ে দোলোয়ার হোসেনসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে ফুলপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

 ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ্ আল মামুন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বামী হত্যার দায় স্বীকার করেছে।

শেয়ার করুনঃ
আপনার মতামত লিখুন:
আরও সংবাদ পড়ুন
Search
গাইবান্ধায় কিশোরী লিমা হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেপ্তার দাবিতে মানববন্ধন  গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের ধর্মপুর পিএন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর মেধাবি ছাত্রী লিমা আক্তার হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে  হত্যাকান্ডের পর থেকেই দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল,সড়ক অবরোধ সহ মানববন্ধন  করে আসছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।    বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে  গাইবান্ধা শহরের ডিবি রোডে ঘন্টাব্যাপী এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য দেন, নারী মুক্তি আন্দোলনের সদস্য সচিব নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, শোভাগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক আবদুল্লাহ আল মামুন,নিহত লিমার বাবা আব্দুল লতিফ, বড় ভাই লিমন মিয়া, ছোট ভাই লিটু মিয়া, কামরুল ইসলাম, আহসান হাবীব,রিমা রিক্তার,পলি বর্মন,আব্দুল আহাদ, শাহাদাৎ হোসেন সিপার, মোস্তাফিজুর রহমান লাভলু, হিমুন দেব বিশ্ব সহ অন্যরা।   গত ২৩ সেপ্টেম্বর লিমা স্থানীয় একটি কোচিং সেন্টারে যাওয়ার পথে স্থানীয় বখাটে শাকিল অপহরন করে নিয়ে যায়। পরে ১০ অক্টোবর চট্রগ্রাম ইপিজেড এলাকার শাকিলের মামা সোলায়মান আলীর ভাড়া বাসা থেকে লিমার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় শাকিল ও তার মামা সোলায়মান আলীকে গ্রেপ্তার করা হলেও আসামী হাফিজুর রহমান, হৃদয় মিয়া, শাকিলের বাবা শহিদুল ইসলাম সহ অন্যান্যদের এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। দ্রুত আসামীদের গ্রেপ্তার করে বিচার দাবি জানান বক্তারা।

গাইবান্ধায় কিশোরী লিমা হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেপ্তার দাবিতে মানববন্ধন গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের ধর্মপুর পিএন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর মেধাবি ছাত্রী লিমা আক্তার হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে হত্যাকান্ডের পর থেকেই দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল,সড়ক অবরোধ সহ মানববন্ধন করে আসছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে গাইবান্ধা শহরের ডিবি রোডে ঘন্টাব্যাপী এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য দেন, নারী মুক্তি আন্দোলনের সদস্য সচিব নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, শোভাগঞ্জ ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক আবদুল্লাহ আল মামুন,নিহত লিমার বাবা আব্দুল লতিফ, বড় ভাই লিমন মিয়া, ছোট ভাই লিটু মিয়া, কামরুল ইসলাম, আহসান হাবীব,রিমা রিক্তার,পলি বর্মন,আব্দুল আহাদ, শাহাদাৎ হোসেন সিপার, মোস্তাফিজুর রহমান লাভলু, হিমুন দেব বিশ্ব সহ অন্যরা। গত ২৩ সেপ্টেম্বর লিমা স্থানীয় একটি কোচিং সেন্টারে যাওয়ার পথে স্থানীয় বখাটে শাকিল অপহরন করে নিয়ে যায়। পরে ১০ অক্টোবর চট্রগ্রাম ইপিজেড এলাকার শাকিলের মামা সোলায়মান আলীর ভাড়া বাসা থেকে লিমার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় শাকিল ও তার মামা সোলায়মান আলীকে গ্রেপ্তার করা হলেও আসামী হাফিজুর রহমান, হৃদয় মিয়া, শাকিলের বাবা শহিদুল ইসলাম সহ অন্যান্যদের এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। দ্রুত আসামীদের গ্রেপ্তার করে বিচার দাবি জানান বক্তারা।


সারাদেশের সংবাদ