ঢাকা, ১৭ মে সোমবার, ২০২১ || ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
 নিউজ আপডেট:

নাগরপুরে শতবর্ষী প্রাচীন ব্রিজ বালু বোঝাই ট্রাক সহ ভেঙ্গে পড়েছে

ক্যাটাগরি : বাংলাদেশ প্রকাশিত: ৮৮৯ঘণ্টা পূর্বে


নাগরপুরে শতবর্ষী প্রাচীন ব্রিজ বালু বোঝাই ট্রাক সহ ভেঙ্গে পড়েছে

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ও শহীদ শামসুল হক বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের কাছের প্রায় শতবর্ষী প্রাচীন ব্রিজটি গতকাল (৯ এপ্রিল) রাত আনুমানিক ৮.৪৫ মিনিটের সময় ভেঙ্গে পড়েছে। বালু বোঝাই আন্তঃজেলা ১টি ট্রাক উপজেলার ছনকা যাওয়ার সময় ব্রিজ ভেঙ্গে পড়ে গিয়েছে।

উল্লেখ্য গত ২৬ মার্চ রাতে আন্তঃজেলার ১টি মাল বোঝাই ট্রাক পার হওয়ার সময় ব্রিজটি ডেবে যায়। পরদিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম, অনলাইন গণমাধ্যম, জাতীয় পত্রিকা সহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজের সংবাদ প্রকাশ হয়। এ বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইউএনও, জনপ্রতিনিধিদের জানানো হলেও নেয়া হয়নি কোন কার্যকরী কোন পদক্ষেপ বলছে এলাকাবাসী।

আজ দূর্ঘটনার সংবাদে সরেজমিনে ঘটনা স্থলে পৌঁছে টাঙ্গাইলের এলেঙ্গার ট্রাক মালিক মো. হারুনের চালক মো. মানিকের সাথে কথা বললে চালক জানায়, ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজে কোন ধরনের সতর্কী করনের সাইনবোর্ড বা লাল নিশানা ছিল না। তাই সচল ব্রিজ মনে করে গাড়ি চালানোর সময় এই দূর্ঘটনার কবলে পড়ি। তাছাড়া যে লোকের বালু নিয়ে যাচ্ছিলাম তাকেও জিজ্ঞেস করেছিলাম রাস্তা বা ব্রিজ কেমন, তিনি বলেছিলেন কোন সমস্যা হবে না, সব ঠিক আছে, আপনি আসেন।

এ ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী যুবক বলেন, আমরা চালকে নিষেধ করা সত্বেও তিনি আমাদের কথায় কর্ণপাত না করেই গাড়ি চালাতে গিয়ে ব্রিজটি ভেঙ্গে, সকলকে আজ ভোগান্তির মুখে ফেলেছে।

স্থানীয় অপর এক বাসিন্দা বলেন, আমরা ব্রিজের ঝুঁকির বিষয়টি সংশ্লিষ্টদের অনবগত করলেও তারা এই ব্রিজের কোন পাশেই সাইনবোর্ড দেয়নি। তাছাড়াও যানবাহন চলাচল সীমিত করেনি। এ কথা বলার পরদিন, ১ দিন শুধু গ্রাম পুলিশ বসিয়েছিলো। আর ছোট এক টুকরো লাল কাপড় দিয়েছিলো। হয়তো বাতাসে উড়িয়ে নিয়ে গেছে। 

দূর্ঘটনার পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইউএনও সিফাত-ই জাহান কে একাধিকবার তার সরকারি নম্বরে কল করেও সংযোগ পাওয়া সম্ভব হয়নি।

নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মো. আনিসুর রহমান খবর পেয়ে দ্রুত ফোর্স পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। তিনি বলেন, এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি, তবে একজন শ্রমিক সামান্য ব্যাথা পেয়েছে।

শেয়ার করুনঃ
আপনার মতামত লিখুন:
আরও সংবাদ পড়ুন